রাউটারে কয়টা এন্টিনা থাকলে ভালো হয়

রাউটারে কয়টা এন্টিনা থাকলে ভালো হয়?

আপনার কি মনে হয় যে আপনার রাউটারের যে কয়টা এন্টেনা আছে, তার চাইতে যদি আরো তিনটা, চারটা এন্টিনা বেশি থাকত, তাহলে এখন যেরকম পারফরম্যান্স দিতেছে, ঠিক একইভাবে পারফরম্যান্স  পেতেন? আসলে বেশি বেশি এন্টিনা আমাদেরকে আদৌ কি কোনো সুবিধা দেয়?……নাকি এটা শুধুমাত্র একটা ভাব দেখানো মার্কেটিং স্ট্রাটেজি? আর যদি সত্যি কোনো ফেসিলিটি থেকে থাকে তাহলে সেগুলো কি কি? এবং কিভাবে মাল্টিপল এন্টিনা সেইসব ফেসিলিটি গুলো পেতে আমাদেরকে সাহায্য করে… আবার অনেকে বলে বেশি অন্টেনা থাকলে নাকি বেশি রেঞ্জ পাওয়া যায়, এই কথাটাই বা কতটুকু সত্য…. আসেন আজকে এই ব্যাপারটা নিয়ে আমরা বিস্তারিত জানি।
ওকে, প্রথম যে কথাটা একেবারে ক্লিয়ার করতে চাই; সেটা হচ্ছে আপনার রাউটারে যতগুলো এন্টিনা আছে সবগুলোরই কোন না কোন কাজ আছে। কোন একটা সিঙ্গেল এন্টিনাও দরকার ছাড়া দেয়া হয় নাই। তাহলে এখন কাজ গুলো কি? তো রাউটারের মাল্টিপল এন্টিনাগুলো সাধারণত তিনটা কাজ করে। একটা একটা করে আমি ব্যাখ্যা করে দিচ্ছি…..
১)
প্রথমত: মাল্টিপল এন্টিনার মাধ্যমে আপনার রাউটার আপনাদের ডিভাইস গুলোর দিকে একই সাথে মাল্টিপল ডাটা স্ট্রিম প্রেরণ করতে সক্ষম হয়। ফলে রাউটার আপনার ডিভাইসকে ফাস্টার কানেকশন স্পিড, ফাস্টার ডাটা রেট এবং অধিক ব্যান্ডউইথ প্রদান করতে সক্ষম হয়। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, সেটা কিভাবে?
আসেন একটা AC স্ট্যান্ডার্ড রাউটারের কথা চিন্তা করি। এ ধরনের রাউটারগুলো কমপক্ষে Dual Band এর হয়… ট্রাই ব্যান্ডের ও হয়। তো যদি ডুয়েল ব্যান্ডের হয়, তাহলে এখানে দুইটা ফ্রিকোয়েন্সি থাকবে। 2.4ghz এবং 5ghz. একদম কমন উদাহরণ হিসাবে TP-Link Archer C6 v3 রাউটারের 5ghz frequency টার কথা বলি। এই রাউটারের 5GHz এর 2টা অ্যান্টেনা থাকে, এবং প্রত্যেকটা এন্টিনা 5ghz এর আলাদা আলাদা ডাটা স্ট্রিম প্রদান করবে এবং প্রত্যেকটা এন্টিনারই কিন্তু ক্ষমতা আছে আপনার ডিভাইস থেকে ডাটা একসঙ্গে রিসিভ করার এবং সেন্ড করার। এক একটা এন্টিনা আপনার ডিভাইসের সঙ্গে 433 Mbps ব্যান্ডউইথ দ্বারা কমিউনিকেট করবে। এখন এই রাউটারে যেহেতু দুইটা 5ghz এন্টিনা থাকে, তাহলে ব্যান্ডউইথের পরিমাণ কত হবে? 866 Mbps. এখন, 5ghz এর এই যে আলাদা দুইটা এন্টিনা থেকে আলাদা দুইটা স্ট্রিম এর মাধ্যমে আলাদা দুইটা ডিভাইসের সঙ্গে এক সাথে কমিউনিকেট করতেছে এটাই হচ্ছে এই রাউটারের 2X2 MU-MIMO.
এখন এই হিসাব মতে যদি কোন রাউটারে 4টা 5GHz এর এন্টেনা থাকে তাহলে সেই রাউটারটা একসঙ্গে চারটা মোবাইল ফোনের সঙ্গে ডেটা আদান প্রদান করতে পারবে এবং সেটা হচ্ছে 4X4 MU-MIMO. তারমানে এখান থেকে আপনারা কি বুঝলেন? এন্টিনা যদি বেশি হয় তাহলে সে বেশি ডিভাইস একসাথে হ্যান্ডেল করতে পারবে।
[the_ad id=”16032″]
২)
দ্বিতীয়তঃ একটা কথা প্রায়ই আমাদের ইউটিউব চ্যানেলের বিভিন্ন ভিডিওতে বলে থাকি,  রাউটারের ফ্রিকুয়েন্সি আপনাকে যে ব্যান্ডউইথ দেবে, তার মধ্যে থেকে আপনি কতটা এনজয় করতে পাবেন সেটা ডিপেন্ড করবে আপনার রাউটারের সাথে আপনার মোবাইল ফোন কতটা Synchronized অবস্থাতে আছে, তার উপরে। তো এই কথার মানে হচ্ছে, আপনার মোবাইল ফোনে যে ইন্টার্নাল এন্টিনা রয়েছে তার সংখ্যা কত এবং সেটা রাউটারের কয়টা স্ট্রিম এর সঙ্গে এক সাথে কমিউনিকেট করতে সক্ষম। যদি একটা এন্টেনার সঙ্গে কম্মুনিকেট করতে সক্ষম হয়, তাহলে 5ghz এর ব্যান্ডউইথ থেকে আপনি পাবেন 433Mbps. যদি 2টার সাথে কমিউনিকেট করতে সক্ষম হয় তাহলে পাবেন 866Mbps এর পুরাটা।
সো মোবাইলফোন পারচেজ করার সময়, এটলিস্ট সেই ফোনে কয়টা এন্টিনা রয়েছে সেটা সিওর হয়ে কেনা উচিত। যাই হোক, মূল কথা হচ্ছে, আপনার মোবাইল ফোন যদি রাউটারের সঙ্গে কম্পিটেবল হয় তাহলে রাউটারের অধিক এন্টিনা আপনাকে অধিক পরিমাণে ব্যান্ডউইথের ক্যাপাসিটি ইনসিওর করবে।
[the_ad id=”16032″]
৩)
তৃতীয়তঃ  একাধিক এন্টিনার ফলে সৃষ্ট বড় ব্যান্ডউইথ আপনাদের ডিভাইসগুলোতে পর্যাপ্ত ডাটা স্পিড নিশ্চিত করবে। উদাহরণস্বরূপ, ধরেন আপনার বাসায় দশটা মোবাইল ফোন আছে, দশটাই 5ghz সাপোর্ট করে। বোঝার সুবিধার জন্য আজকে শুধুমাত্র এই 5ghz ফ্রীকোয়েন্সের কথাটাই বলতেছি। এখন আপনি একটা রাউটার ইউজ করেন যার একটাই মাত্র 5GHz অ্যান্টেনা… For Example যে কোন AC750 রাউটার.. TP-Link এর C20 অথবা D-Link এর 819… এগুলার একটাই মাত্র 5ghz অ্যান্টেনা থাকে, এবং সেটার ব্যান্ডউইথ 433 Mbps, যেমনটা একটু আগে বললাম।এখন ওই দশটা মোবাইল এই 433Mbps ব্যান্ডউইথের কানেক্টেড থেকে কাজ করে… একটু চিন্তা করে দেখেনতো 433Mbps এর জায়গাতে যদি এই 10 টা মোবাইল  866Mbps এর একটা ব্যান্ডউইথ ইউজ করতে পারত তাহলে কি হতো?
ডেফিনেটলি প্রত্যেকটা ডিভাইসের ভাগে বেশি ব্যান্ডউইথ পড়তো। আগের চাইতে আরো স্মুথলি এবং স্পিডে কাজ করতে পারতো। বেশি ব্যান্ডউইথের পক্ষে স্বাভাবিক ভাবেই আপনাদের ফোনগুলো কে বেশি স্পিড এনসিওর করা পসিবল হয়, কমপেয়ার টু কম ব্যান্ডউইথ।
[the_ad id=”16030″]
4)
চতুর্থ পয়েন্টে যেটা বলতে চাই, আপনার রাউটারের যখন অনেকগুলো এন্টিনা থাকবে, স্বাভাবিকভাবে আপনার রাউটারের পক্ষে বাসার চতুর্দিকে সমানভাবে নেটওয়ার্ক ছড়িয়ে দেওয়া অনেক ইজি হয়ে যাবে। এবং আপনি আপনার বাসার যেখানেই যান না কেন দেখবেন যে কোন না কোন ভাবে আপনার নেটওয়ার্ক পেয়েই গেছেন। এর কারণ হচ্ছে ডিফারেন্ট এন্টিনা রাউটারের গায়েই ডিফারেন্ট ডিফারেন্ট জায়গায় বসানো আছে এবং সেগুলো আপনাদের ডিভাইস এর সাপেক্ষে আলাদা আলাদা অ্যাঙ্গেল মেন্টেন করবে। সো এন্টেনা থেকে বের হওয়া প্যাকেট ডাটাগুলো আলাদা আলাদা অ্যাঙ্গেলে আপনাদের বাসার বিভিন্ন দেয়ালে রিফ্লেক্ট হবে এবং আপনাদের ডিভাইসগুলোর দিকে যেতে চেষ্টা করবে। সুতরাং বিভিন্ন ধরনের অ্যাঙ্গেল হওয়ায় কোনো না কোনো অ্যাঙ্গেলের ডাটা আপনার ডিভাইসে দেখবেন ঠিকই পৌঁছে যাবে। So multi-antenna is great for data sending as well as receiving.
5)
আর 5 নং পয়েন্ট হচ্ছে;  যদি রাউটারের অনেকগুলো অ্যান্টেনা থাকে তাহলে আপনি network distribution যে direction তাকে optimize করতে পারবেন। এর মানে হলো আপনি আপনার প্রয়োজন অনুসারে অ্যান্টেনাগুলোকে বিভিন্ন দিকে ফিরিয়ে রাখার সুযোগ পাবেন। আমরা বাসা বাড়িতে যেসব রাউটার ইউজ করি সেগুলোর এন্টেনার ধরন থাকে omni-directional অর্থাৎ এন্টেনার চতুর্দিকে সে নেটওয়ার্ক ডিসট্রিবিউশন করে, এন্টেনার একদম উপরে আর একদম নিচের দিকে ছাড়া। সুতরাং একটা ভার্টিক্যাল পজিশনে থাকা এন্টেনা ভূমির সঙ্গে 90° অ্যাঙ্গেলে থাকে। এখন আপনি যত ডিগ্রী অ্যাঙ্গেল করে তাকে হরিজনটালি কাত করতে থাকবেন, নেটওয়ার্ক ডিস্ট্রিবিউশনের ডিরেকশন টাও ততো ডিগ্রিতে ঘুরে যাবে। এভাবে করে আপনি আপনার ডিভাইস এর সাপেক্ষে নেটওয়ার্ক ডিসট্রিবিউশন কে অপটিমাইজ করতে পারবেন… এবং এই অপটিমাইজেশনটা রাউটারে যত বেশি অ্যান্টেনা থাকবে ততো নিখুঁত ভাবে করতে পারবেন।
এবার বেশি এন্টিনা থাকলে বেশি রেঞ্জ পাওয়া যাবে কিনা সে সম্পর্কে বলছি। প্রথমে হা না তে ans টা দিয়ে দিচ্ছি, তারপর কারণটা বলতেসি। তো রেঞ্জ বেশি পাবেন কিনা….উত্তরটা হচ্ছে না। Antenna বেশি থাকার কারণে রেঞ্জ বেশি পাবেন না। কারণ অ্যান্টেনাগুলো সব এক জায়গাতেই থাকে। একই পয়েন্টে না থাকলেও এক ফিট এর মধ্যেই থাকে। সুতরাং আপনি রেঞ্জ প্রত্যেকটা এন্টেনা থেকেই সমান পাবেন.. অর্থাৎ একটা এন্টিনা আপনাকে যে পরিমাণ রেঞ্জ দিতে সক্ষম, ওই রাউটারের যদি আরো পাঁচটা এন্টিনা বাসনা থাকে তাহলে একই রেঞ্জ পাবেন। রেঞ্জের ব্যাপারটা সম্পূর্ণ ডিপেন্ড করে এন্টেনার গেইন এবং রাউটারের বিল্ড কোয়ালিটির উপরে।
[the_ad id=”16030″]
তবে হা, অ্যান্টেনা সংখ্যা বেশি হওয়ার কারণে আপনি ওই একই রেঞ্জে স্পিড বেশি পাবেন, যেখানে যাবেন সেখানে হয়তো নেটওয়ার্ক পাবেন… বাট রেঞ্জ বেশি হবে না।
এই ধরনের আরও ইনফরমেশন পাওয়ার জন্য এবং বিভিন্ন ধরনের রাউটার এর রিভিউ দেখার জন্য আপনি চাইলে আমাদের YouTube চ্যানেলে ভিজিট করতে পারেন। লিংক: https://www.youtube.com/channel/UCjVnNFYhfYSnFjq8QTTT4gQ   

Total solution plus:

Total Solution Plus-Best Computer, Laptop & Gadget Shop in Bangladesh.Technology has now become our constant companion. Bangladesh is not lagging behind with time. Our Total Solution Plus is a trusted company in our country. We ensure the right price for our consumers. In the midst of all this busyness, our company Total Solution Plus provides their maximum service for proper safety and quality of products. Our goal is to gain consumer loyalty and provide quality products.

Best Computer, Laptop & Gadget Shop in Bangladesh

Technology has become a part of our daily lives and for a huge portion of our life, we are dependent on tech products daily. There is hardly a home in Bangladesh without a tech product. This is where we come in.Total Soution Plus had started as a Tech product shop way back in june 2008. We focused on giving the customers the best service possible. This is why Total Sloution plus is one of The most trusted names in the tech industry of Bangladesh today.


Comments

One response to “রাউটারে কয়টা এন্টিনা থাকলে ভালো হয়?”

  1. ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *